কোন অমুসলিম মুসলিম হলে তার নাম পরিবর্তন কি আবশ্যক?

নাম,সেটা কেউ আগে থেকেই মুসলিম থাকুন আর নতুন হোন না কেন যদি শিরকের অন্তর্গত হয় তবে তা জানা মাত্র পরিবর্তন করতে হবে।নামের ব্যপারে এটাই প্রথম কথা।সাধারণত মুসলিম নাম শিরক থেকে পবিত্র থাকে।কিন্তু অনেক অমুসলিম থাকে যাদের নাম অর্থের দিক থেকে বিবেচনায় শিরকের অন্তর্ভুক্ত হয়ে থাকে।এ অবস্থায় মুসলিম হওয়ার সময় তার নাম পরিবর্তন করা অত্যাবশ্যক। মুসলমানদের নামের নিজস্ব একটা স্টাইল বা সংস্কৃতি আছে।অনেক ক্ষেত্রেই তাদের নাম দেখেই চেনা যায়।তাই অমুসলিম অবস্থায় যে নাম ছিল তা যদি শিরক দোষে দুষ্ট নাও হয় কিন্তু পূর্বের ধর্ম পরিচয় নাম থেকেই বুঝা যায় তবে পরিবর্তন করাই শ্রেয়।

অনেক আগে আমার কাছে এক মুসলিম নারী এসেছিল এক ব্যপারে আপত্তি নিয়ে।তার নাম রীতা আর ২৫ বছর ধরে সে এই নামে অভ্যস্ত।এখন তার নামটি ত্যাগ না করলেই কি নয়? আমি বললাম রীতা নাম পরিবর্তন করতেই হবে এমন কোন কথা নেই।আবার ২৫ বছর ধরে অভ্যস্ত তাই এটা পরিবর্তন করা যাবে না এটাও কোন কথা নয়।অনেক মেয়ের নামই বিয়ের পূর্বে থাকে তাহমিনা হোসাইন বা তাহমিনা খানম কিন্তু বিয়ের পর তা হয়ে যায় তাহমিনা হক বা খন্দকার বা এমন অন্য কিছু।তাই বলে কি তারা অসন্তুষ্ট?তাই বলা যায় শিরক দোষে দুষ্ট নাম না হলে পরিবর্তন না করলেও চলবে।মহানবী সাল্লাল্ললাহু আলায়হি ওয়া সাল্লামের সময় অনেক সাহাবী(রাধি আল্লাহু আনহু) ই তাদের পূর্ব নাম ঠিক রেখেছিলেন।

শুধুমাত্র পৌত্তলিকতা বা শিরক দোষে দুষ্ট নামগুলোই পরিবর্তন করতে হবে।এমন অনেক আরব অমুসলিম আছে যাদের আরবী নামের কারনে মনে হয় সে বুঝি মুসলিম।অথচ সে অমুসলিম।এ কারনে নামের অর্থটাই প্রধান বিবেচ্য হওয়া উচিত।তবে ইসলাম গ্রহনের সাথে সাথে নাম পরিবর্তন যদি জীবনের জন্য হুমকি বিবেচিত হয়তবে তাৎক্ষণিকভাবে সেটা না করাই শ্রেয় যদিও নামটি পৌত্তলিকতা বা শিরক মিশ্রিত হয়।দেখুন নাম পরিবর্তন না করলে হবে না একথা আমরা বলতে পারি না।আল্লাহ বলেছেন-

“আল্লাহ যা হালাল করেছেন তোমরা তা হারাম করো না।”

এতেই বোঝা যায়,অনেকেই অনেক বৈধ বিষয় কঠিন করে ফেলে অবৈধ ভাবতে পারে।কিন্তু আল্লাহ এটি নিষেধ করেছেন এমতাবস্থায় পূর্বের নাম রাখা ঠিকই হবে না একথা বলা কোনভাবেই যুক্তিসঙ্গত নয়।তবে ইসলামী ভাবধারা সম্পন্ন নাম রাখলে ক্ষতি নেই বরং তা আনন্দের।আল্লাহ এজন্য পুরস্কৃত করতে পারেন।

__________________________ডাঃ যাকির নাইক

Advertisements
This entry was posted in প্রশ্ন উত্তর and tagged , . Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s